আল্লাহ, নবী-রাসুল, ফেরেশতা, মানুষ এবং সারা জাহান এবং অন্যান্য গুরুত্বপুর্ন বিষয়ে আলোচনা এবং গবেষনা।


রাজনীতি থেকে ধর্মকে দূরে রাখা উচিত


এটা খুবই গুরুত্বপুর্ন যে, রাজনীতি থেকে ধর্মকে দুরে রাখা উচিত কারন ধর্ম আর রাজনীতি যদি একাকার হয়ে যায় তাহলে ধর্মেরই বেশি ক্ষতি হয়। ধর্ম মানুষকে সৎপথে চলার দিশা দিবে, অনুপ্রানিত করবে, উৎসাহ দিবে কিন্তু বাধ্য করবে না। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন বলেছেন, ধর্মের ব্যাপারে কোন জবরদোস্তি নেই। মহান আল্লাহ চাইলে এই পৃথিবীতে সবাই সমবেতভাতে ঈমান নিয়ে আসত এবং হেদায়েতের পথে চলত।

কিন্তু কেন মহান আল্লাহ তা চাইলেন না তা আমরা জানি না। এটা রহস্যময়! মহান আল্লাহ স্বয়ং নিজে অত্যন্ত রহস্যময়! আমরা তাঁকে কক্ষন দেখতে পাই না, শুনতে পাই না অথচ তিনি আমাদের অতি নিকটে; তিনি পর্দার অন্তরালে থেকে এই পৃথিবী তথা মহাবিশ্বের সব গুরুত্বপুর্ন ব্যাপারের কলকাঠি নাড়েন। কাজেই ধর্মটাই একটা রহস্যময় বিষয় কারন ধর্মের সাথে স্রস্টার ব্যাপার ওতোপ্রতভাবে জড়িত।

সুতরাং ধর্মগুরুদের অত্যন্ত সহিষ্ণু হতে হবে, ক্ষমাশীল হতে হবে, নিরহংকারী হতে হবে, উচ্চাভিলাশী হলে চলবে না। কাজেই যারা ধর্মকে লালন করবে, যারা মানুষকে ধর্ম তথা আল্লাহর পথের দিশা দিবে, অনুপ্রানিত করবে, সক্রিয়ভাবে রাজনীতি করা তাদের কাজ হতে পারে না। সাধারন মানুষ এবং সৎ ও জনদরদী রাজনীতিবিদরা ধর্মগুরুদের কাছে আসবে ইনস্পায়ার্ড হতে, বা ধর্মগুরুরা সব মানুষের কাছে যাবে ইনস্পায়ার্ড করতে।

প্রকৃত ধর্মগুরুরা স্রস্টা এবং সৃস্টির মধ্য সেতুবন্ধনের কাজ করবে। সমস্ত নবী-রাসুলরা এই সেতুবন্ধনের কাজটিই করেছেন; নবী-রাসুলদের যোগ্য উত্তরসুরী প্রকৃত ধর্মগুরুদেরও প্রধানত ওটাই কাজ। ধর্ম আর রাজনীতি একসাথে মিশালে ধর্ম কলুষিত হয়ে যেতে বাধ্য, ধর্মকে রাজনীতি করার, ক্ষমতা কুক্ষিগত করার হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহ্বত হতে বাধ্য।

গোলমালটা তক্ষনই বাধে যা ইতিহাসে বার বার হয়েছে। যার পরিনতি অনেক ক্ষেত্রেই হয়েছে ভয়াবহ। আমাদের রাসুল সঃ রাজা-বাদশা বা প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রী হতে আসেন নাই। তাই যদি হত, মহান আল্লাহ তাকে সারা পৃথিবীর একছত্র সম্ম্রাট বানিয়ে দিতেন; এটা আল্লাহর জন্য অতি সহজ। সত্য ধর্ম প্রচার করতে যেয়ে নেহায়েত আত্বরক্ষার জন্য মাঝে মধ্যে তাঁকে অস্ত্র হাতে তুলে নিতে হয়েছে, এর বেশি কিছু নয়।

কাজেই আমরা যারা আমাদের প্রিয় রাসুল সঃ এর আনিত সত্য ধর্ম প্রচারের কাজ করব, সক্ক্রিয়ভাবে রাজনীতি করা আমাদের কাজ না। আমরা রাজনীতিবিদ তথা সব মানুষের সাথে যোগাযোগ রাখতে পারি, সৎ এবং জনদরদী রাজনীতিবিদদের সমর্থন করব, তাদের উৎসাহ দেব (যাতে দেশ ও সমাজটা ভালভাবে চলে) কিন্তু সক্ক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে কক্ষনও নামব না কারন ওটা আমাদের কাজ না। এখানে লোভ সংবরন করতে হবে; ধর্মকে ব্যবহার করে প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী, বা মন্ত্রী হওয়া আমাদের কাজ না। সবাইকে ধন্যবাদ।

 


2 Brilliant Comments - Join Discussion Now!

  1. তরীক says:

    http://www.somewhereinblog.net/blog/BilalAhmedImran/29269263 থেকে ‌‌”ইসলামে রাজনীতি : প্রেক্ষিত বাংলাদেশ” ব্লগটি দয়া করে পড়ুন।

  2. Rubel Hossain says:

    পড়লাম। আপনি ইসলামের উপর মারাত্বক ভুল ব্যাখ্যা দিয়েছেন। ধর্মকে কখনই রাজনীতির সাথে গুলানো উচিত না। তা না হলে ধর্ম ব্যবহার করা হয় ক্ষমতা লাভের হাতিয়ার হিসাবে, এই সহজ বিষয়টিকি আপনি বুঝেন?

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।